ইনারিতুর অদৃশ্য ফুটবল

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

ইনারিতু, মেক্সিকান ফিল্মমেকার। অরেঞ্জ এয়ার বল, তাঁর অন্যতম টিভিসি। ২০১০ সালে অনুষ্ঠিত আফ্রিকান নেশন্স কাপের ক্যাম্পেইন শিরোনাম ছিল, পাওয়ার অব ইমাজিনেশন। আর চিন্তার এই ক্ষমতাকেই প্রকাশের জন্য কব্জি ও মগজের ম্যাজিকে, ইনারিতু যে টিভিসি নির্মাণ করেন, তা এক কথায় অনবদ্য। টিভিসিতে দেখা যায়, আফ্রিকান কোনো ঘিঞ্জি বাজারে, ফুটবল খেলায় মত্ত ছেলেপেলের বল কেড়ে নেয় প্রহরী! বাজার থেকে সটকে পড়ার জন্যও ইঙ্গিত করে সেই বজ্জাত চাকুরে। বিরস বদনে ফিরতে ফিরতে, অদম্য এই ছেলেপেলে, কাল্পনিক এক ফুটবল আবিষ্কার করে নেয়, তারপর শুরু হয়, অদ্ভূত ও অসাধারণ এক ফুটবল গেমের। যেখানে ফুটবলের যত চোখ ধাঁধানো কারুকাজ, পাস, গোল-পোস্টে কিক হতে শুরু করে, ডি-বক্সের একটু সামনে প্রতিপক্ষের বিপজ্জনক ট্যাকলের পর, ফ্রি-কিকও দেখা যায়। দেখা যায়, দর্শকদের তুমুল উত্তেজনা, রেফারির বাঁশি ও লাল কার্ড, আমরা যারা বাংলাদেশি, তাদের মনে হতে থাকে, এই বুঝি ৯০-এর জার্মান-আর্জেন্টিনা ম্যাচ।

…অনেকটা ঋত্বিক ঘটকের
মতো যেন এই
কাল্পনিক ফুটবল ম্যাচ,
সারা দুনিয়াকে, জানান দেয়,
ভাবো!
ভাবা প্র্যাকটিস করো!!…

সব শেষে, ফ্রি-কিক থেকে, গোল পেয়ে, চারপাশে, দর্শকদের যে উল্লাসধ্বনি ছুটে যেতে থাকে, তা আসলে নিছক একটা ফুটবল ম্যাচ থাকে না। তা যেন, কল্পনার ক্ষমতাকেই প্রকাশ করে, আর বলে, কল্পনা করো। অনেকটা ঋত্বিক ঘটকের মতো যেন এই কাল্পনিক ফুটবল ম্যাচ, সারা দুনিয়াকে, জানান দেয়, ভাবো! ভাবা প্র্যাকটিস করো!!

অসাধারণ এই টিভিসির জন্য, দ্য গ্রেট, ইনারিতুকে, ওয়াটারমেলনের পক্ষ থেকে টুপি খোলা অভিবাদন প্রিয়। কপিরাইটার আর এজেন্সিকে, রাজসিক স্যালুট!!

Share.

About Author

টিম ওয়াটারমেলন

। ক্রেজি, ক্র্যাকড ও ক্রিয়েটিভ একদল তরুণের গ্যারেজ।

Leave A Reply

error: Content is protected !!